শফিক ভাই! বিপ্লবীরা আপনার পথ ধরেই হাঁটবে…

সৈয়দ আনোয়ার আবদুল্লাহ ||

জ্ঞান অর্জন চরিত্র গঠন ও সমাজ বিপ্লবের কাফেলা বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্র মজলিসের প্রতিষ্ঠাকালীন কেন্দ্রীয় সভাপতি, খেলাফত মজলিসের নায়েবে আমীর ও হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের যুগ্মমহাসচিব মাওলানা শফিক উদ্দীন ইন্তেকাল করেছেন। ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিঊন।

৯০-এর দশকে যাদের বিপ্লবী আওয়াজে এদেশের স্কুল কলেজ মাদরাসা কম্পিত হয়েছিল। দীন বিজয়ের অমোঘ মন্ত্রে লক্ষ তরুণ উদ্বেলিত হয়েছিল, বাংলাদেশে ইসলামি বিপ্লব ও ইসলামি খেলাফতের স্বপ্নদ্রষ্টা যে কজন জান্দাদিল বিপ্লবির হাত ধরে তাদের একজন শফিক ভাই।

আজকের মামুন ভাইদের (মাওলানা মামুনুল হক) মতো বিপ্লবি নেতারা এই শফিক ভাইর হাত ধরেই উঠে আসা। আজকের বাংলাদেশে যেসকল ইসলামি আন্দোলন গড়ে উঠেছে, যে সকল যুব ও ছাত্র সংগঠন বিপ্লবের স্বপ্ন লালন করেন, তাদের সকলের অন্যতম পুরোধা ব্যাক্তিত্ব বলা চলে এই শফিক উদ্দীন রহ.-কে।

বিশেষ করে কওমী মাদরাসার তরুণদের মাঝে সমাজ বিপ্লবের বীজ বুনা ও কলেজ বিশ্ব বিদ্যালয়ের ছাত্রদেরকে ইসলামি আন্দোলনে সম্পৃক্ততার কারিগর ছিলেন এই মহান বিপ্লবী নেতা। আমরা নিরব হবো না…
আমরা নিস্তব্ধ হবো না….

আহ! আপনার কন্ঠে এই বিপ্লবি আওয়াজ আর কখনো শুনবে না এই পজন্মের বিপ্লবিরা… আমার মতো হাজার লক্ষ তরুণের তিনি ছিলেন তারুণ্যের বিপ্লবের নায়ক। আমাদের চিন্তার জগতের মহিরুহ। শফিক ভাইর সাথে কত সম্মেলন আর কত কর্মশালার স্মৃতি আজ স্মৃতির পাতায় ভেসে উঠছে।

এদেশে ইসলামি আন্দোলন ও সমাজ বিপ্লবের জন্য শফিক ভাইদের ত্যাগ, কুরবানী, নজরানা যুগ যুগান্তরে অমর হয়ে থাকবে। আল্লাহর জন্য অনন্তকাল তাঁর কবরে দাওয়াতে ইলাল্লাহর এই সদকায়ে জারিয়া পৌছাবে ইনশাআল্লাহ। দয়াময় আল্লাহ মরহুমের কবরকে নূর দ্বারা ভরপুর করে দিন।