১২ মে পর্যন্ত ইতালিতে বাংলাদেশিদের প্রবেশ বন্ধ

প্রবাস ডেস্ক : বৈশ্বিক মহামারী মরণঘাতী নভেল করোনাভাইরাস সংক্রমণ ইতালিতে নতুন ভ্যারিয়েন্টে ঠেকাতে আগামী ১২ মে পর্যন্ত বাংলাদেশিদের প্রবেশ বন্ধ রাখা হয়েছে। নতুন এই অধ্যাদেশে সই করেন দেশটির স্বাস্থ্যমন্ত্রী রোবেরতো স্পেরেন্সা। মঙ্গলবার রাতে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের প্রজ্ঞাপন জারি করার পর বাংলাদেশি ও ভারতীয় নাগরিকদের প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা দেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, যে সকল দেশে করোনার প্রাদুর্ভাব বৃদ্ধি পাচ্ছে সেই দেশের নাগরিকদের জন্য ইতালিতে প্রবেশ বন্ধ করা হচ্ছে। বাংলাদেশ ও ভারত ছাড়াও শ্রীলঙ্কার নাগরিকদের উপর এ নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে। অন্যদিকে যেসব নাগরিক উল্লিখিত দুই দেশে গত দুই সপ্তাহে অবস্থান ও সাময়িক ট্রানজিট করেছেন তাদের ক্ষেত্রে সম্ভাবনা রয়েছে ইতালিতে প্রবেশ করার, তবে অনুমতিপত্রসহ বড় ধরনের নির্দিষ্ট কারণ থাকতে হবে।

করোনা সংক্রমণের ভয়ে এর আগেও একবার বাংলাদেশ থেকে ভ্রমণকারীদের জন্য সীমান্ত বন্ধ করেছিল ইতালি। গত বছর যখন করোনার প্রথম ঢেউয়ের ধাক্কায় ইউরোপ টালমাটাল, তখন দীর্ঘদিন দেশটিতে যাত্রীবাহী উড়োজাহাজ চলাচল বন্ধ ছিল। অবশেষে ৭ জুলাই ভাড়া করা বিশেষ উড়োজাহাজে করে ইতালি যান প্রবাসী বাংলাদেশিরা। সেখানে পৌঁছানোর পর ৭৫ জনের করোনা শনাক্ত হয়। এরপর বাংলাদেশিদের প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা জারি করে ইতালি। পরে কয়েক দফায় এর মেয়াদ বাড়ায় দেশটি। অবশেষে ১৪ অক্টোবর বাংলাদেশ থেকে ইতালিতে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ শেষ হয়।